বিকাশমোবাইল ব্যাংকিং

বিকাশ একাউন্টের মালিকানা পরিবর্তন 

আমি পূর্বেই একটি আর্টিকেল লিখেছি কিভাবে বিকাশ একাউন্ট বন্ধ করা যায়। সেই আর্টিকেলটিতে সংক্ষিপ্ত আকারে বোঝানো হয়েছে বিকাশ একাউন্টের মালিকানা পরিবর্তন  বিষয়টি নিয়ে। 

তাতে, আজকের আর্টিকেলটি পড়লে পূর্ণাঙ্গভাবে ধারণা পাবেন কিভাবে বিকাশ একাউন্টে মালিকানা পরিবর্তন করা যায়। 

কিভাবে বিকাশ একাউন্টে মালিকানা পরিবর্তন করা যায়

প্রথমত, আমাদের মধ্যে অনেকেই একটি কমন সমস্যা হলো, আপনি যখন আপনার বিকাশ একাউন্ট খুলেছিলেন তখন হয়তোবা আপনার ভোটার আইডি কার্ড হাতে ছিল না বা কাছে ছিল না। তখন আপনি বাধ্য হয়ে বিকাশ একাউন্ট খোলার জন্য আপনার বন্ধু কিংবা ফ্যামিলির অন্য কারো অথবা অন্য আরেকজনের ভোটার আইডি কার্ড অনুসারে আপনার বিকাশ একাউন্ট খুলেছেন। 

এখন আপনি চাচ্ছেন, আপনার বিকাশ একাউন্ট আপনার ভোটার আইডি কার্ড অনুসারে করতে বা আপনার ভোটার আইডি কার্ড ট্রান্সফার করতে বা সেই বিকাশ একাউন্টের মালিকানা পরিবর্তন করতে।

আরো পড়ুনঃ  [সমাধান] দুঃখিত! বিকাশ একাউন্ট খোলা সম্ভভ হচ্ছে না

তো এইটা কিভাবে করতে হয়? জানতে হলে সম্পূর্ণ লিখাটি মনোযোগ সহকারে পড়বেন। 

বিকাশ একাউন্টের মালিকানা পরিবর্তনের নিয়ম

আপনি চাইলে বিকাশ এর মালিকানা ট্রান্সফার করতে পারবেন না। যে আপনার একজনের নামে বিকাশের মালিকানা রয়েছে, সেখান থেকে সেই অ্যাকাউন্ট ট্রান্সফার করে আপনি আপনার নামে মালিকানা ট্রান্সফার করতে পারবেন না। 

তবে এটি একটি বিকল্প পদ্ধতি রয়েছে আপনি চাইলে সেই পদ্ধতি অবলম্বন করে বিকাশের মালিকানা পরিবর্তন করতে পারবেন। এখন সেই বিকল্প পদ্ধতি আপনাদের সামনে তুলে ধরবঃ 

বিকাশ একাউন্ট এর মালিকানা পরিবর্তন করতে হলে

যার নামে বিকাশ একাউন্ট খোলা আছে তাকে সাথে করে নিয়ে আপনাকে বিকাশ সেন্টারে চলে যেতে হবে, সাথে করে কিছু ডকুমেন্টস নিয়ে যেতে হবে। 

বিকাশ সেন্টারে কি কি নিয়ে যেতে হবে

  1. যার নামে বিকাশ একাউন্ট খোলা আছে তাকে নিয়ে যেতে হবে। 
  2. সাথে তার ওরজিনিয়াল ভোটার আইডি কার্ড অথবা ড্রাইভিং লাইসেন্স অথবা পাসপোর্ট যেটা দিয়ে সে বিকাশ একাউন্ট খুলেছে তার অরজিনিয়াল আইডি কার্ড বা ডুকুমেন্ট সাথে করে নিয়ে যেতে হবে।
  3.  তার এক কপি রঙ্গিন ছবি নিতে হবে
  4.  ভোটার আইডি কার্ড পাসপোর্ট অথবা ড্রাইভিং লাইসেন্স যেটা দিয়ে বিকাশ একাউন্ট করেছিল সেই ডকুমেন্ট এর একটি ফটোকপি নিয়ে যেতে হবে 
  5. এবং বিকাশ একাউন্টের ব্যালেন্স 0 করে দিতে হবে।

 আপনার প্রথমত বিকাশ একাউন্টের মালিক ও উপরে ডকুমেন্ট গুলো নিয়ে বিকাশ কাস্টমার কেয়ারে নিয়ে যেতে হবে। কাস্টমার অফিসার কে বললেই আপনার বিকাশ একাউন্ট বন্ধ করে দিবে অথবা সিম থেকে বিকাশ একাউন্ট বন্ধ করে দেওয়া হবে।

বিকাশ আকাওউন কিভাবে বন্ধ করা যায় আরো বিস্তারিত জানতে এইখানে ক্লিক করুন

ওই বিকাশ অ্যাকাউন্ট যদি ক্লোজ হয়ে যায়। আপনি চাইলে আপনার এই সিমে অর্থাত যে সিমে পূর্বে বিকাশ একাউন্ট ছিল, আপনার ভোটার আইডি দিয়ে নতুন করে ওই একই সিমে নতুন করে বিকাশ একাউন্ট খুলে নিতে পারবেন। 

এখানে যে বিকাশ একাউন্টের মালিকানা পরিবর্তন সেটা হবে না।।

কারণ, পূর্বের একাউন্টটা টোটালি বন্ধ হয়ে যাবে। যেহেতু আগের বিকাশ একাউন্ট বন্ধ হয়ে গিয়েছে, কিন্তু নতুন করে এখন সিমে নতুন ভোটার আইডি কার্ড দিয়ে নতুন বিকাশ একাউন্ট খুলতে পেরেছেন। সেহেতু নতুন করে বিকাশ একাউন্ট খোলা হল, কিন্তু মালিকানা পরিবর্তন হলো না। এইটাই হলো একমাত্র সিস্টেম, এই সিস্টেম ছাড়া বিকাশ এর মালিকানা পরিবর্তন করা যায় না।

পোষ্টটি ভিডিওতে দেখুন

বিশেষ দ্রষ্টব্য

কিছু কথা বলে নিই, আপনি যখন বিকাশ অ্যাকাউন্ট বন্ধ করবেন বা বিকাশ একাউন্টের মালিকানা পরিবর্তন করবেন। তার পূর্বে, অবশ্যই অবশ্যই আপনার বিকাশ একাউন্ট 0 শূন্য করে নিবেন। কারণ বিকাশ একাউন্ট বন্ধ বা মালিকানা পরিবর্তন করার পর বন্ধ করা বিকাশ একাউন্ট থেকে হাজার চেষ্টা করলেও টাকা ফেরত আনতে পারবে না।

সারগো আইটি নিউজ

টেক ও প্রযুক্তির সকল তথ্য সকল মানুষের সাথে শেয়ার করা এবং অনলাইনে নিরপত্তা নিশ্চিত করাই সারগো আইটি নিউজের মূল লক্ষ্য । তাই টেক ও প্রযুক্তির সকল তথ্য জানার জন্য নিয়মিত আমাদের ব্লগে চোখ রাখুন এবং বিভিন্ন আপডেট ই-মেইলে পেতে আমাদের ওয়েবসাইটের সাবস্ক্রিপশন অন করে রাখুন।

Leave a Reply

Back to top button

Adblock Detected

Please Disable your AdBlocker