বিকাশমোবাইল ব্যাংকিং

বিকাশ অ্যাড মানি অফার ২০২২ । প্রতি শুক্রবারে ১০০ টাকা বোনাস!

মার্চ মাসের ৪ তারিখ পর্যন্ত প্রতি শুক্রবার ব্যাংক থেকে বিকাশ-এ ১৫০০ টাকা অ্যাড মানি’তে ১০০টাকা বোনাস। বিকাশ অ্যাড মানি অফার ২০২২।

ছুটির দিনে ব্যাংক থেকে ১,৫০০ টাকা অ্যাড মানি করে পেয়ে যান ১০০ টাকা বোনাস, ২ কার্যদিবসের মধ্যে! তারপর কেনাকাটা, পে বিল বা সেন্ড মানি সব করুন ঘরে বসেই।

এভাবে, একজন বিকাশ গ্রাহক ফেব্রুয়ারির চারটি এবং মার্চের প্রথম শুক্রবার, সর্বমোট পাঁচবার বোনাস পাবেন। তো আর দেরি কেন? এখনই অ্যাড মানি করুন।

ফেব্রুয়ারী ৪ থেকে মার্চ মাসের ৪ তারিখ পর্যন্ত প্রতি শুক্রবার ব্যাংক থেকে ১,৫০০ টাকা অ্যাড মানি করে পেয়ে যান ১০০ টাকা বোনাস, ২ কার্যদিবসের মধ্যে! তারপর কেনাকাটা, পে বিল বা সেন্ড মানি সব করুন ঘরে বসেই। 

কত বার বোনাস নেওয়া যাবে?

এভাবে, একজন বিকাশ গ্রাহক ফেব্রুয়ারির চারটি এবং মার্চের প্রথম শুক্রবার, সর্বমোট পাঁচবার বোনাস পাবেন। তো আর দেরি কেন? এখনই অ্যাড মানি করুন। 

বিকাশ অ্যাড মানি অফার ২০২২ মেয়াদ

  • ৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২২;
  • ১১ ফেব্রুয়ারি ২০২২;
  • ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২২;
  • ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২২; এবং
  • ৪ মার্চ, ২০২২ তারিখ।

বিকাশ অ্যাড মানি অফার ২০২২ অফারের বিস্তারিত

  • বিকাশ গ্রাহকেরা নির্দিষ্ট তারিখে ১,৫০০ টাকা বা তার বেশি অ্যাড মানি করলেই পাচ্ছেন ১০০ টাকা বোনাস । 
  • ১৫০০ টাকা বা তার বেশি অ্যাড মানি করে বোনাস  উপভোগ করা যাবে।
  • প্রতি নির্দিষ্ট শুক্রবারে শুধুমাত্র ১টি লেনদেনে অফারটি উপভোগ করা যাবে।
  • ক্যাম্পেইন চলাকালীন একজন গ্রাহক মোট ৫বার অফারটি উপভোগ করতে পারবেন।
  • শুধুমাত্র iBanking-এর ক্ষেত্রে অফারটি প্রযোজ্য।

বিকাশ অ্যাড মানি অফার ২০২২ শর্তাবলী

  • যে বিকাশ একাউন্টে অ্যাড মানি করা হবে, সেই একাউন্টেই বোনাস  প্রদান করা হবে।
  • বিকাশ অ্যাপ ও API-এর মাধ্যমে অ্যাড মানি’র ক্ষেত্রে অফারটি প্রযোজ্য।
  • কোনো কার্যক্রম যদি এমন কোনো যুক্তিসংগত সংশয় তৈরি করে যে, গ্রাহক বোনাস  সুবিধার অপব্যবহার করেছেন, সেক্ষেত্রে বিকাশ গ্রাহকের বোনাস  সুবিধা বাতিলের অধিকার সংরক্ষণ করে।
  • গ্রাহকের একাউন্ট স্ট্যাটাসের ইস্যুজনিত কারণ ছাড়া যদি অন্য কোনো অজানা/অপ্রত্যাশিত কারণে বোনাস বিতরণ ব্যর্থ হয়, সেক্ষেত্রে ক্যাম্পেইন শেষ হওয়ার পর বিকাশ ২ মাসের মধ্যে ১বার বিরতিতে বোনাস  বিতরণের চেষ্টা করবে। সকল উপায়ই যদি ব্যর্থ হয়, তাহলে আর কোনো চেষ্টা করা হবে না এবং গ্রাহক বোনাস  অফারের জন্য আর অন্তর্ভুক্ত বিবেচিত হবেন না।
  • সচল একাউন্ট স্ট্যাটাস এবং পর্যাপ্ত ব্যালেন্স থাকা সাপেক্ষে যেকোনো বিকাশ গ্রাহক নিজ একাউন্ট থেকে পেমেন্ট করে অফারটি উপভোগ করতে পারবেন। 
  • যদি গ্রাহকের একাউন্ট স্ট্যাটাসের ইস্যুজনিত কারণে বোনাস  বিতরণ ব্যর্থ হয়, সেক্ষেত্রে গ্রাহক বোনাস  অফারটি পাবেন না।
  • বিকাশ কোনো পূর্ব ঘোষণা ছাড়াই যেকোনো উপায়ে ক্যাম্পেইনের নিয়ম ও শর্তাবলি, ব্যাংকের অংশগ্রহণ পরিবর্তন/সংশোধন বা যেকোনো সময় সম্পূর্ণ ক্যাম্পেইন বাতিল করার অধিকার সংরক্ষণ করে।
  • বিকাশ/অংশগ্রহণকারী ব্যাংক কোনো পূর্ব ঘোষণা ছাড়াই যেকোনো উপায়ে ক্যাম্পেইনের নিয়ম ও শর্তাবলির পরিবর্তন/সংশোধন বা যেকোনো সময় সম্পূর্ণ ক্যাম্পেইন বাতিল করার অধিকার সংরক্ষণ করে।
  • কোনো নির্দিষ্ট লেনদেন এবং/অথবা গ্রাহকের লেনদেন কার্যক্রম যদি এমন কোনো যুক্তিসংগত সংশয় তৈরি করে যে, গ্রাহক বোনাস  সুবিধার অপব্যবহার করেছেন, সেক্ষেত্রে বিকাশ এবং অংশগ্রহণকারী ব্যাংক উভয়ই গ্রাহকের বোনাস  সুবিধা বাতিলের অধিকার সংরক্ষণ করে।
  • সাধারণত গ্রাহক ২ কর্মদিবসের মধ্যেই বোনাস পেয়ে যাবেন; কিন্তু যদি কোনো গ্রাহক বোনাস  না পেয়ে থাকেন, সেক্ষত্রে তারা 16247-এ ডায়াল করে অথবা বিকাশ সেন্টার, বিকাশ কেয়ার, ফেসবুক ফ্যান পেইজ, ওয়েব চ্যাট (লাইভ চ্যাট সার্ভিস)-এর পাশাপাশি support@bkash.com -এই ঠিকানায় ইমেইলের মাধ্যমে যোগাযোগ করে এ সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পারেন।
আরো পড়ুনঃ  বিকাশে জমানো টাকার উপর ইন্টারেস্ট

আমাদেরকে গুগল নিউজে ফলো করতে এইখানে ক্লিক করে স্টার বাটন প্রেস করুন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button