|

বিকাশের খরচ কমানোর নামে ধোঁকাবাজি…

বিকাশের খরচ কমানোর নামে ধোঁকাবাজি…

বিকাশ ‘ক্যাশ আউটে চার্জ কমলো’ শিরোনামে বিজ্ঞাপন প্রচার করছে। এখানে বেশ ধোঁকাবাজির আশ্রয় নিয়েছে। আর ওভারঅল খরচ বাড়িয়েছে। কীভাবে…?

১. আগে প্রতি সেন্ড মানিতে ৫ টাকা নিত। এখন সেটা ১০ টাকা।

২. ২৫ হাজার টাকা লিমিটের বাইরে গেলেই বাড়বে সকল চার্জ।

৩. একটি “প্রিয় এজেন্ট” নাম্বারে ক্যাশ আউটে লাগবে হাজারে ১৪.৯০ টাকা। মানে বিকাশের এজেন্টের কাছে গ্রাহককে আটকে রাখার কৌশল।

৪. এবার কৌশলের পর বাটপারি। সেই এজেন্ট থেকে মাসে ২৫ হাজারের বেশি টাকা তুলতে গেলে দিতে হবে ১৮.৫০ টাকা।

আমাদেরকে গুগল নিউজে ফলো করতে এইখানে ক্লিক করে স্টার বাটন প্রেস করুন।

৫. আগে কিন্তু অ্যাপে ছিল ১৭.৫০ টাকা। এখন ঐ এজেন্টের কাছে গেলেও ১৮.৫০ টাকী। অর্থাৎ ২৫ হাজারের প্যাচে ফেলে পরবর্তী হাজারে এখন থেকে ১ টাকা করে বেশি কাটবে বিকাশ।

৬. মজার বিষয় হলো, এরা গণহারে বিজ্ঞাপন দিচ্ছে প্রতি হাজারে ১৪.৯০ টাকা ক্যাশ আউটে খরচ। কিন্তু এটা মিথ্যা। অ্যাপে আগে যা ছিল হাজারে ১৭.৫০ টাকা এখন তা ১৮.৫০ টাকা।

৭. এখন ১৪.৯০ টাকার বিজ্ঞাপন দেখে সরল বিশ্বাসে বাঙালি যখন ক্যাশ আউট করবে তখন কাটা হবে ১৮.৫০ টাকা। মানে ঘোষণার চেয়ে হাজারে প্রায় ৫ টাকা বেশি। এবার দোকানির সঙ্গে কাষ্টমার করবে চিল্লাচিল্লি। একটু পরে ঠান্ডা। মাঝখানে ধোঁকা দিয়ে টাকা নিল বিকাশ।

বি.দ্র. এরা এমনভাবে সুক্ষ হিসাব করে আপনাকে লাভ দেখাবে যে হিসাব দেখে আপনার লোকসান বোঝার উপায় নেই। টের পাওয়া যায় লোকসান হবার পর।

আরো পড়ুনঃ  নগদ-রকমারি বইমেলা অফার ২০২২ । নগদ ২৫% ছাড়

Similar Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *